বগুড়ার শিবগঞ্জে ব্যবসায়ীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার

প্রধান খবর বগুড়ার সংবাদ

নবদিন ডেস্ক:

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় মোস্তাফিজার রহমান মোস্তা (৫২) নামে এক ইট ভাটার মালিককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ বুধবার (২১ অক্টোবর) সকালের দিকে নিহতের বাড়ি সংলগ্ন পুকুর পাড় থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত মোস্তাফিজার রহমান মোস্তা উপজেলার পশ্চিম জাহাঙ্গীরাবাদ গ্রামের মৃত আকবর আলীর ছেলে । তিনি শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন আ.লীগের ৯ নয় ওয়ার্ড সদস্য, একই ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য ও এমএবি ইট ভাটার মালিক এবং বালু ব্যবসায়ী ছিলেন বলে জানা গেছে ।

নিহত মোস্তার পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর তিনি বাড়ি থেকে এক কিলোমিটার দূরে আলাদীপুরে তার ইট ভাটায় যাওয়ার কথা বলে বের হন। রাত ২টা পর্যন্ত মোস্তার স্ত্রী তার মোবাইলে ফোন করলেও তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি। আজ বুধবার (২১ অক্টোবর) সকালে বাড়ি সংলগ্ন পুকুর পাড়ে মোস্তার মরদেহ দেখতে পান প্রতিবেশীরা। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে।

স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, পুকুর পাড়ে তার মরদেহ পাওয়া গেলেও সেখানে তাকে হত্যা করার কোন আলামত চোখে পড়েনি। একারণে এলাকাবাসী ধারণা করছে তাকে অন্য কোথাও হত্যা করে মরদেহটি তার বাড়ির কাছে পুকুর পাড়ে ফেলে রেখে গেছে। নিহতের হাত-পায়ের রগ কাটাসহ মাথায় বড় ধরণের আঘাতের চিহ্ন এবং পা ভাঙ্গা ছিল।

স্থানীয়রা আরো জানায়, মোস্তা এলাকায় এক সময় অপরাধ জগতের সাথে জড়িত ছিলেন। সেসময় তার নামে বিভিন্ন ধরণের ছিনতাই, ডাকাতি, চোরাকারবারী ছাড়াও বিভিন্ন অভিযোগে একাধিক মামলা ছিল। পরবর্তীতে তিনি ওই জগত থেকে বেরিয়ে বালুর ব্যবসা শুরু করেন। গত ১০ বছরের মধ্যে তিনি এলাকায় বালুর ব্যবসা করে ইট ভাটার মালিক হয়েছেন। এছাড়াও তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত হয়ে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য হয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে শিবগঞ্জ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আরিফুল ইসলাম সিদ্দিকী জানান, তাৎক্ষনিকভাবে হত্যার কারণ জানা যায়নি। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *