বগুড়ায় বিষাক্ত মদপানে ১৬ জনের মৃত্যুর ঘটনায় প্রধান আসামি গ্রেফতার

প্রধান খবর বগুড়ার সংবাদ

নবদিন ডেস্ক:

বগুড়ায় বিষাক্ত মদপানে ১৬ জনের মৃত্যুর ঘটনায় প্রধান আসামি পারুল হোমিও হলের মালিক নুরন্নবীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে এই ঘটনায় মোট আটক হলো ৫ জন।

পুলিশ জানায়, স্থানীয় কয়েকটি হোমিও হল থেকে রেক্টিফাইড স্পিরিট সংগ্রহ করে পান করায় মৃত্যু হয়েছে কয়েকজনের। তবে মূল অভিযোগ পারুল ও পুনম হোমিও হলের বিরুদ্ধে।

রোববার থেকে বিষাক্ত মদপানে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন মোট ১৬ জন।

মৃতরা হলেন- রমজান আলী (৪০), সুমন রবিদাস (৩০), তার বাবা প্রেমনাথ (৭০) ও চাচা রামনাথ, পলাশ মিয়া (৩৫), সাজু (৫৫), মোজাহার আলী (৭৫), আব্দুল জলিল (৬৫), জুলফিকার রহমান (৫৫), আবুল কালাম (৫০), আব্দুর রহিম (৪২), আলমগীর (৪০), আব্দুর রাজ্জাক (৪২), মেহেদী হাসান (২৫), আব্দুল আহাদ (৩৮) এবং লাজু মিয়া (৩২)।

নিহতরা বগুড়া সদর উপজেলায় তিনমাথা, কালিতলা, ফুলবাড়ি ও কাটনারপাড়া এলাকা এবং কাহালু, শাজাহানপুর ও সারিয়াকান্দি উপজেলার বাসিন্দা।

শাজাহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, মৃত্যুর বিষয়ে নিশ্চিত হতে মরদেহগুলো ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে অসুস্থ ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, শহরের পারুল হোমিও হল, খান হোমিও হল, পুনম হোমিও হল, সাতমাথায় একটি দেশি মদের দোকানসহ কয়েকটি দোকান থেকে অ্যালকোহল কিনে পান করে তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন।

বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ বলেন, তিনটি হোমিও হলের বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে অভিযান পরিচালনা করা হবে।

মদ বিক্রির বিষয়ে বগুড়া সদর থানায় সোমবার রাতে একটি মামলা হয়েছে। মামলায় তিন জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। আসামিরা হলেন- খান হোমিও হলের মালিক শাহিনুর রহমান শাহীন, পারুল ও পুনম হোমিও হলের মালিক নুর আলম ও নুর নবী। এ সঘটনায় প্রধান আসামি পারুল হোমিও হলের মালিক নুরন্নবীকে গ্রেফতার করল পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *