ধুনটে বিষ খাইয়ে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

প্রধান খবর বগুড়ার সংবাদ

তারিকুল ইসলাম, ধুনট (বগুড়া)

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় আনার কলি (৩৩) নামে এক গৃহবধূকে বিষ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী ও সতীনের বিরুদ্ধে। শ্বশুরবাড়ি থেকে জমি বিক্রি করে টাকা এনে না দেওয়ায় তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ। নিহত আনার কলি উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের ঈশ্বরঘাট গ্রামের মোজাম্মেল হকের স্ত্রী।

সোমবার দুপুর ১২টায় দাফনের প্রস্তুতিকালে স্বামীর বাড়ি থেকে আনার কলির মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এর আগে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার রাত প্রায় ৩টায় তার মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, উপজেলার ঈশ্বরঘাট গ্রামের মৃত আমজাদ হোসেনের মেয়ে আনার কলিকে দুই বছর আগে বিয়ে করেন মোজাম্মেল হক। তবে মোজাম্মেল হকের আগের পক্ষের স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর দ্বিতীয় স্ত্রী আনার কলিকে বাবার বাড়ি থেকে জমি বিক্রি করে টাকা এনে দেওয়ার চাপ দেয় মোজাম্মেল। শনিবার দুপুওে মোজাম্মেল হক ও তার প্রথম স্ত্রী নিজ বাড়িতে মিষ্টির সাথে বিষ মিশিয়েন কৌশলে আনার কলিকে হত্যা করে বলে অভিযোগ পরিবারের সদস্যদের।

আনার কলির ভাই আব্দুস ছোবাহান পুলিশকে এ ঘটনা জানায়। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
মোজাম্মেল হক বলেন, আমার স্ত্রী মিষ্টি খেয়ে ডায়েরিয়া রোগে আক্রন্ত হয়। এক পর্যায়ে অচেতন হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। তাকে বিষ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ মিথ্যা।

ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আব্দুল জাব্বার বলেন, আনার কলির স্বামীর বর্ণনা অনুযায়ী ডায়েরিয়া রোগের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, আনার কলির মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তার তদন্ত প্রতিবেদন ও ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *