বগুড়ায় মোটর মালিক সমিতির দুই গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ১০

প্রধান খবর বগুড়ার সংবাদ

পারভীন লুনা,বগুড়া প্রতিনিধি:

বগুড়ায় মোটর মালিক সমিতির দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, ডিএসবি সদস্যসহ আহত ১০ সংঘর্ষ চলাকালীন মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। বগুড়ায় মোটর মালিক সমিতির নিয়ন্ত্রন নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ডিএসবির কনস্টেবলসহ অন্তত ১০জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে শহরের চারমাথা এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় মোটর মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামের অফিসসহ কয়েকটি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

সংঘর্ষ চলাকালীন জেলা স্পেশাল ব্রাঞ্চের (ডিএসবি) সদস্য মো. রমজান আলী ঘটনাস্থলে থেকে তথ্য সংগ্রহ করছিলেন। ওই সময় তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। বর্তমানে তিনি অন্য আহতদের সঙ্গে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা জানান, একটি গ্রুপ জেলা মোটর মালিক শ্রমিক গ্রুপের অফিস দখল করতে আসছে এমন খবর পেয়ে ফোর্স পাঠানো হয়। এ সময় হামলায় ডিএসবির এক সদস্য ছুরিকাহাত হন। সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ ৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ৭ জানুয়ারি দুপুরে বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের নিয়ন্ত্রণ নিতে গিয়ে অবরোধের মুখে ফিরে আসেন বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের (এডিএম) নেতৃত্বে একটি টিম। বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের নেতৃত্ব নিয়ে বিরোধের কারণে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রশাসক নিয়োগ দিয়ে দায়িত্ব গ্রহণের ১২০ দিনের মধ্যে নির্বাচনে দিতে বলা হয়। কিন্তু মালিকদের পক্ষ থেকে এ নিয়ে হাইকোর্টে মামলা চলমান রয়েছে। এক পর্যায় হাইকোর্টের নির্দেশে গত ৬ ডিসেম্বর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট প্রশাসকের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে এডিএম নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ পুলিশ নিয়ে চারমাথা এলাকায় মোটর মালিক গ্রুপের অফিসের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার চেষ্টা করেন। এতে মোটর মালিক গ্রুপের সাবেক নেতৃবৃন্দ অফিসের চাবি না দিয়ে বগুড়া-ঢাকা, বগুড়া-রংপুর ও বগুড়া-নওগাঁ সড়কে বাস আড়াআড়ি করে দিয়ে অবরোধ সৃষ্টি করেন। ফলে মহাসড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যানজট সৃষ্টি হয়। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে এক ঘণ্টা পর অবরোধ তুলে নেন পরিবহন নেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *