‘এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ পেলেন ভেটেরিনারি সার্জন ডা. মো. রায়হান পিএএ

প্রধান খবর বগুড়ার সংবাদ

এস,আই শাওন:

বাংলাদেশের কৃষি ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় প্রেস্টিজিয়াস মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ‘এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার (২ এপ্রিল) বিকালে ঢাকার তেজগাঁওয়ে দীপ্ত টেলিভিশন স্টুডিওতে দীপ্ত টিভি আয়োজিত ‘এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ প্রদান করা হয়।

‘এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ সেরা কৃষি শিক্ষা ব্যাক্তিত্ব এবং সেরা সামাজিক সংগঠক; হিসেবে ২ ক্যাটেগরিতেই একমাত্র সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে এ পদক অর্জন করেছেন অ্যান্টিবায়োটিক ও স্টেরয়েড (হরমোন) ধরনের ওষুধ ব্যবহারমুক্ত দেশী মুরগী পালনে প্রশিক্ষণ পাঠশালা ‘স্বপ্ন ছোঁয়ার সিঁড়ি’র উদ্ভাবক শেরপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন ডা.মো.রায়হান পিএএ । তার হাতে ‘এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ তুলে দেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক।

জনপ্রিয় চিত্র নায়ক ফেরদৌস ও চিত্র নায়িকা পুর্ণিমার সঞ্চালনায় দীপ্ত টিভি আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। বিশেষ অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ,ম রেজাউল করিম। এতে অন্যদের মধ্যে দীপ্ত টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী জাহেদুল হাসান ও এসিআই এগ্রিবিজনেসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এফ এইচ আনসারী, ভেট’স সোসাইটি অব বগুড়ার সাধারণ সম্পাদক, পুসাসের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মোঃ তাওহীদুল ইসলাম সুমনসহ আরো অনেকে।

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকের হাত থেকে ‘এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ গ্রহণ করছেন শেরপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন ডা.মো.রায়হান পিএএ ।

বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন দীপ্ত টিভি ও এসিআই যৌথভাবে কৃষিকাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে উৎসাহ ও সম্মাননা জানাতে প্রথমবারের মতো এই কৃষি পদক দিয়েছে। কৃষি উদ্যোক্তা, উদ্ভাবক, গবেষক, কৃষক ও খামারিদের মোট ১০টি ক্যাটাগরিতে এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

এসি আই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ পেয়েছে ৯ ব্যক্তি ও ১ প্রতিষ্ঠান। সেরা কৃষি শিক্ষা ব্যাক্তিত্ব এবং সেরা সামাজিক সংগঠক; হিসেবে ২ ক্যাটেগরিতেই এ পদক অর্জন করেছেন ‘স্বপ্ন ছোঁয়ার সিঁড়ি’ পাঠশালার উদ্ভাবক শেরপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন ডা.মো.রায়হান পিএএ, সেরা কৃষিশিক্ষা প্রতিষ্ঠান/ব্যক্তি বিভাগে পুরস্কার পেয়েছেন নওগাঁর জাহাঙ্গীর আলম শাহ, সেরা শস্য উৎপাদনকারী কৃষক হয়েছেন ফেনীর আবু ছায়েদ রুবেল, চট্টগ্রামের হাসান চৌধুরী সাগর সেরা খামারি (গরু, ছাগল, মহিষ), কক্সবাজারের নয়ন সেলিনা সেরা খামারি (পোলট্রি) ও খুলনার মামুনুর রশিদ সেরা খামারি (মৎস্য) ক্যাটাগরিতে পদক পেয়েছেন। সেরা সবজি চাষি হয়েছেন হবিগঞ্জের বদু মিয়া। সেরা ফল চাষি হয়েছেন চাঁপাই নবাবগঞ্জের মতিউর রহমান। তাছাড়া, গাইবান্ধার নজরুল ইসলাম সেরা কৃষি উদ্ভাবক ও সাভারের কোব্বাদ হোসাইন সেরা কৃষি উদ্যোক্তা হয়েছেন।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যে দেশি মুরগির জাত সংরক্ষণ ও সম্প্রসারণ এবং স্বল্প বিনিয়োগে উদ্যোক্তা তৈরিতে অবদান ও জনসেবায় অনবদ্য ভূমিকা রাখায় ডা.মো.রায়হান পিএএ ইতিমধ্যে জাতীয় পর্যায়ে (ব্যক্তিগত শ্রেণি) জনপ্রশাসন পদক, (আর-৬২ তম) বুনিয়াদী প্রশিক্ষণে ২য় স্থান অর্জন করায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে স্বর্ণপদক, নাগরিক সেবায় শ্রেষ্ঠ উদ্ভাবনী কর্মকর্তার স্বীকৃতিস্বরুপ ২০১৯ সালে বগুড়া জেলা প্রশাসন ও বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও পদক অর্জন করেছেন। একই বছর রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের পক্ষ থেকে ইনোভেশন শোকেসিং শ্রেষ্ঠ পাইলটিং উদ্যোগ নির্বাচিত হন।

ডা. মো. রায়হান ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়ালেখা শেষ করে ৩১ তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণের মাধ্যমে চাকরিতে যোগদান করেন। তিনি টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলার শফিকুল ইসলামের ছেলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *