এসিআই দীপ্ত কৃষি পদক অর্জন করায় পুসাসের পক্ষ থেকে ডাঃ রায়হান পিএএ কে শুভেচ্ছা প্রদান

বগুড়ার সংবাদ

মৌসুমী ইসলাম:

শেরপুর উপজেলা প্রাণীসম্পদ দপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন (জনপ্রশাসন পদক প্রাপ্ত) ডাঃ মো. রায়হান পিএএ এসিআই দীপ্ত কৃষি পদক-২০২০ অর্জন করায় পাবলিক ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্ট’স এসোসিয়েশন অব শেরপুর (পুসাস) এর পক্ষ থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পুসাসের সদস্য বৃন্দ। ৬এপ্রিল (সোমবার) সকাল ১১ টায় শেরপুর উপজেলা প্রাণীসম্পদ দপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন (জনপ্রশাসন পদক প্রাপ্ত) ডাঃ মো. রায়হান পিএএ’র অফিসে উপস্থিত হয়ে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান পাবলিক ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্ট’স এসোসিয়েশন অব শেরপুর (পুসাস) এর সদস্যরা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পুসাসের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মোঃ তাওহীদুল ইসলাম সুমন, পুসাসের সাধারণ সম্পাদক শওকত শামীম, সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম সৌরভ, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মুজাহিদ, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক সোহেল তানভির ও শাহরিয়ার মামুন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মোঃ রেজোয়ান, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এ এইচ আব্দুল্লাহ হোসাইন, শাখাওয়াত কবির রাসু, মেহেদী হাসান জিহাদসহ পুসাসের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ ।

উল্লেখ্য, ‘এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ সেরা কৃষি শিক্ষা ব্যাক্তিত্ব এবং সেরা সামাজিক সংগঠক; হিসেবে ২ ক্যাটেগরিতেই একমাত্র সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে এ পদক অর্জন করেছেন অ্যান্টিবায়োটিক ও স্টেরয়েড (হরমোন) ধরনের ওষুধ ব্যবহারমুক্ত দেশী মুরগী পালনে প্রশিক্ষণ পাঠশালা ‘স্বপ্ন ছোঁয়ার সিঁড়ি’র উদ্ভাবক শেরপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের ভেটেরিনারি সার্জন ডা.মো.রায়হান পিএএ । শুক্রবার (২ এপ্রিল) বিকালে ঢাকার তেজগাঁওয়ে দীপ্ত টেলিভিশন স্টুডিওতে দীপ্ত টিভি আয়োজিত অনুষ্ঠানে তার হোতে ‘এসিআই দীপ্ত কৃষি অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ তুলে দেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক।

শেরপুর উপজেলা প্রাণীসম্পদ দপ্তরসূত্র জানায়, ইতিমধ্যে দেশি মুরগির জাত সংরক্ষণ ও সম্প্রসারণ এবং স্বল্প বিনিয়োগে উদ্যোক্তা তৈরিতে অবদান ও জনসেবায় অনবদ্য ভূমিকা রাখায় ডা.মো.রায়হান পিএএ জাতীয় পর্যায়ে (ব্যক্তিগত শ্রেণি) জনপ্রশাসন পদক, (আর-৬২ তম) বুনিয়াদী প্রশিক্ষণে ২য় স্থান অর্জন করায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে স্বর্ণপদক, নাগরিক সেবায় শ্রেষ্ঠ উদ্ভাবনী কর্মকর্তার স্বীকৃতিস্বরুপ ২০১৯ সালে বগুড়া জেলা প্রশাসন ও বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও পদক অর্জন করেছেন। একই বছর রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের পক্ষ থেকে ইনোভেশন শোকেসিং শ্রেষ্ঠ পাইলটিং উদ্যোগ নির্বাচিত হন। ডা. মো. রায়হান ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়ালেখা শেষ করে ৩১ তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণের মাধ্যমে চাকরিতে যোগদান করেন। তিনি টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলার শফিকুল ইসলামের ছেলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *