মোবাইলে গেম খেলতে না দেয়ায় বগুড়া ক্যান্ট. পাবলিক স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

প্রধান খবর বগুড়ার সংবাদ শিক্ষা

নবদিন ডেস্ক:

‘বাবা-মা আমাকে ফ্রি ফায়ার গেম খেলতে দিত না। বকাঝকা করতো। তাই আমি চলে গেলাম। আমাকে আর বকাঝকা করতে হবে না’।

চিরকুটে এমন কথা লিখে বগুড়ার শাজাহানপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে যষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার (২৫ মে) সকালে উপজেলার বি-ব্লক রহিমাবাদ এলাকার বাসা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত স্কুল ছাত্রী উম্মে হাবিবা বর্ষা (১২) বর্ষা বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলার রামকৃঞ্চপুর গ্রামের সার্জেন্ট রওশন হাবিবের মেয়ে এবং বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।

শাজাহানপুর থানার এসআই সোহেল রানা জানান, লাশ উদ্ধারের সময় একটি খাতায় পেন্সিলে লেখা ছিলো ফ্রি ফায়ার গেম খেলতে না দেয়ায় সে আত্মহত্যা করেছে।

তিনি আরো জানান, রাতে সে তার মায়ের কাছে গেম খেলার জন্য মোবাইল ফোন চেয়েছিল। কিন্তু তিনি দেননি। তাই অভিমান করে ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিঁয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করে।

শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, আত্মহত্যার আগে মেয়েটি চিরকুট লিখে গেছে। প্রয়োজনীয় আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ স্বজনদের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *