শেরপুর পৌরসভার ৬৪ কোটি ৯১ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা

প্রধান খবর বগুড়ার সংবাদ

এস,আই শাওন:

২০২১-২২ অর্থ বছরে বগুড়ার শেরপুর পৌরসভার জন্য ৬৪ কোটি ৯১ লাখ ৪০ হাজার টাকার বাজেট বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে । বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সকাল ১১টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে পৌরসভার নিজস্ব কার্যালয়ে পৌর মেয়র আলহাজ্ব জানে আলম খোকা এই বাজেট ঘোষণা করেন।

প্রথম শ্রেণির এ পৌরসভার বাজেটে নিজস্বখাত ও সরকারি অনুদান থেকে রাজস্ব আয় হিসেবে ধরা হয়েছে ৭ কোটি ২১ লাখ ৪০ হাজার টাকা, উন্নয়ন সহায়তা মঞ্জুরি ৬ কোটি টাকা, (ক) মিউনিসিপ্যাল গভর্ন্যান্স প্রকল্প (ওএন্ডএম) এমজিএসসি ও (খ) মিউনিসিপ্যাল গভর্ন্যান্স সার্ভিসেস প্রকল্প (এমজিএসপি) মোট ২১ কোটি ৫০ লাখ টাকা, জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড ৫ কোটি টাকা, পানি সরবরাহ, ড্রেনেজ ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় ১৫ কোটি টাকা এবং করোনা ভাইরাস ও ডেঙ্গু মোকাবেলায় সরকারি সহায়তা থেকে ২০ লাখ টাকা, বৃহত্তর পাবনা-বগুড়া গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প থেকে আয় ধরা হয়েছে ১০ কোটি টাকা।

অনুষ্ঠানে পৌর মেয়র জানে আলম খোকা বলেন, ১৮৭৬ সালে শেরপুর পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয়। পর্যায়ক্রমে তৃতীয় শ্রেণী থেকে প্রথম শ্রেণির মর্যাদায় উন্নীত হয় এই পৌরসভাটি। এই পৌরসভাকে মডেল ও আধুনিক হিসেবে গড়ে তোলাসহ পৌরসভার নাগরিক সেবার মান বাড়াতেই এই বাজেট তৈরি করা হয়েছে। সেইসাথে মডেল ও আধুনিক পৌরসভা গড়ে তোলার লক্ষ্যে নানামুখী উন্নয়নসহ নাগরিক সেবার মান বাড়ানোর জন্য এবারের বাজেটে বিশেষ পরিকল্পনা রাখা হয়েছে। তবে চলমান বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে গোটা পৃথিবীর ন্যায় বাংলাদেশেও প্রভাব পড়েছে। আর্থিক খাত কিছুটা হলেও স্থবির হয়ে পড়েছে। এরপরও প্রস্তাবিত বাজেটটি বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে।

এর মাধ্যমে পৌরবাসীর নাগরিক সেবার মান নিশ্চিত করা হবে। বাজেট অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন-পৌরসভার কাউন্সিলর নাজমুল আলম খোকন, নিমাই ঘোষ, ফিরোজ আহম্মেদ জুয়েল, জাকারিয়া মাসুদ, সৌমেন্দ্রনাথ ঠাকুর শ্যাম, ফারুক ফয়সাল, চন্দন কুমার দাস মহিলা কাউন্সিলর মমতাজ বেগম রুনী, করুনা রানী ঘোষ, শারমিন আকতার, পৌরসভার সচিব ইমরোজ মজিব, সহকারী হিসাবরক্ষক রেজাউল করিম, পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকার সাংবাদিকরা।

মেয়র আরো বলেন, করোনা সংকটকালে প্রতিকূল পরিস্থিতির কথা বিবেচনায় রেখে জনকল্যাণমুখী কার্যক্রমকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে বাজেটে। এছাড়া করোনার প্রাদুর্ভাব রোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ চলমান থাকবে। ঘোষিত বাজেট বাস্তবায়ন হলে শেরপুর পৌরসভা একটি উন্নত ও আধুনিক পৌরসভা হিসেবে পরিণত হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। কাউন্সিলর ও জনগণের সহযোগিতায় মেরপুর পৌরসভা আরও এগিয়ে যাবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *