শাজাহানপুরে প্রেমিকাকে বিয়ে করতে না পেরে যুবকের আত্মহত্যা

বগুড়ার সংবাদ

নবদিন ডেস্ক:

বগুড়ার শাজাহানপুরে প্রেমিকাকে বিয়ে করতে না পেরে অভিমান করে ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ খেয়ে ফয়সাল হাসান ওরফে লিটন (২০) নামে এক কলেজছাত্র আত্মহত্যা করেছেন। গ্যাস ট্যাবলেট খাওয়ার আগে তার ব্যবহৃত ফেসবুক প্রোফাইল ও কাভার ছবিতে ‘অফলাইন’ লিখে কালো রং করে দেন। ফয়সাল হোসেন উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের মানিকদিপা নিশানচড়া গ্রামের কৃষক শফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি বগুড়া সরকারি শাহ-সুলতান কলেজে ডিগ্রিতে পড়ালেখা করতেন।মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় এক মেয়ের সাথে ফয়সাল হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ওই মেয়ের অন্যত্র বিয়ে হয়। এ নিয়ে পারিবারিকভাবে বাবা-মার সাথে মনোমালিন্য হওয়ার একপর্যায়ে অভিমান করে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে ফয়সাল হোসেন গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে ফেলেন। কিছুক্ষণ পর রক্তবমি শুরু হলে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে রাতেই বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ভর্তি করা হয়। সেখানে রাত সোয়া ১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর দুই মাস আগেও একবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল বলেও জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

শাজাহানপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ফয়সাল মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। এর আগেও সে দুইবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল। তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *