ধুনটে মারপিটের ঘটনায় মামলা, গ্রেপ্তার ১

বগুড়ার সংবাদ

তারিকুল ইসলাম, ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি:

পূর্ব শত্রুতা ও পারিবারিক কলহের জের ধরে বগুড়ার ধুনটে উপজেলায় মারপিটের ঘটনার মামলায় এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার শাহাদুল ইসলাম(৪২) উপজেলার কচুগাড়ি গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে তাঁকে ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কচুগাড়ি গ্রামের সুজন মন্ডলের সাথে একই গ্রামের বাদশা মন্ডলের পূর্ব শত্রুতা চলে আসছে। সালিশ বৈঠক করেও উভয় পরিবারের সাথে আপোষ মিমাংসার করা যায়নি। এমতাবস্থায় গত ১২ আগস্ট দুপুরের দিকে সুজন মন্ডলের বাড়িতে আসে বাদশা মন্ডল ও তার লোকজন।

এসময় উভয় পক্ষের মাঝে কথাকাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষ বাদশা মিয়া ও তার পক্ষের লোকজন ক্ষুব্ধ হয়ে সুজন মন্ডলকে মারপিট শুরু করে। এসময় সুজন মন্ডলের চিৎকারে তাঁর ছোট ভাই আকাশ, বাবা আজগর আলী মন্ডল এবং খালা রাশেদা খাতুন এগিয়ে আসলে তাদেরকেও মারপিটে আহত করে বাদশা মিয়া ও তার লোকজন।

পরে স্থানীয়রা সুজন মন্ডলসহ আহতদের উদ্ধার করে ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় সুজন মন্ডল বাদি হয়ে ওই দিন রাতেই ধুনট থানায় একটি অভিযোগ দেন। ওই অভিযোগে বাদশা মন্ডলসহ ০৮ জনকে আসামী করা হয়।

এ ঘটনায় থানা পুলিশ সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার কচুগাড়ি গ্রাম থেকে মামলার এজাহার নামীয় আসামী শাহাদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা জানান, প্রাথমিক তদন্তের মারপিটের ঘটনার সত্যতার প্রমান পাওয়া গেছে। এজাহারভুক্ত এক আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। #ছবি আছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *