জাতীয় সংগীত অবমাননা, মুচলেকায় মুক্তি পেল বগুড়ার ৫ শিক্ষার্থী

বগুড়ার সংবাদ

জাতীয় সংগীতের অবমাননা করে টিকটক ভিডিও বানানোর অভিযোগে আটক পাঁচ শিক্ষার্থীকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টায় মুচলেকা নিয়ে তাদের অভিভাবক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

তারা হলেন, বগুড়ার ঠনঠনিয়া দক্ষিণপাড়া এলাকার আমিনুল ইসলামের ছেলে নূরে আলিফ (২২), তিনমাথা এলাকার আব্দুল মালেক মিসকাত হোসেন (১৯) ও বাদশা শেখের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী (১৭), নাটোরের সিংড়া উপজেলার চৌগ্রামের আবদুর রহিমের ছেলে আলভি সুজন (২০) ও ভাদুড়ী পাড়ার আবুল কালাম আজাদের ছেলে আরিফ আলী (২০)।

১৭ বছর বয়সী স্কুল পড়ুয়া এক কিশোর ছাড়া প্রত্যেকে উচ্চ মাধ্যমিক ও বগুড়া শহরের বিভিন্ন কলেজে স্নাতকে অধ্যয়নরত।

এর আগে সোমবার (২৩ আগস্ট) দিবাগত রাতে বগুড়া শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে সদর থানা পুলিশ৷

সদর থানা সূত্র জানায়, শহরের মালতিনগর স্টাফ কোয়াটার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে দাঁড়িয়ে জাতীয় সংগীতকে বিকৃত ও ব্যঙ্গ করে টিকটক ভিডিও তৈরি করে কিছু যুবক। ভিডিওটি বাংলাদেশ পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইংয়ের নজরে আসলে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজাকে তাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনতে বলা হয়৷ বার্তা পেয়ে সদর থানা পুলিশ রাতে তাদের আটক করে৷ পরে জিজ্ঞাসাবাদে অসৎ কোনো উদ্দেশ্য না থাকায় ও আটক সবাই শিক্ষার্থী হওয়ায় মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

সদর থানার এসআই জাকির আল আহসান জানান, তথ্যপ্রযুক্তির সাহায্য জাতীয় সংগীত বিকৃত করা ওই তরুণদের শনাক্তের পর আটক করা হয়েছিল। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পুলিশ হেডকোয়ার্টাসের নির্দেশে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

বগুড়া সদর থানা পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, আটক শিক্ষার্থীরা তাদের ভুল বুঝতে পারায় হেডকোয়ার্টাসের নির্দেশে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *